27 Magh 1427 বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ »
Home / সর্বশেষ / এমপি পাপুলের ৪ বছরের কারাদণ্ড

এমপি পাপুলের ৪ বছরের কারাদণ্ড

 

মানব ও অর্থ পাচারের দায়ে কুয়েতে আটক বাংলাদেশের সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলকে ৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত। বৃহস্পতিবার কুয়েতের ফৌজদারি আদালত এই রায় দেন। একইসঙ্গে ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল বা ৫৩ কোটি ১৯ লাখ ৬২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তিনি লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য।

কুয়েতের ফৌজদারি আদালতের বিচারক আবদুল্লাহ আল ওথমান বাংলাদেশের সাংসদের পাশাপাশি সে দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তা মেজর জেনারেল মাজেন আল জারাহকেও শহিদ ইসলামের মতো চার বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল জরিমানা করেন। প্রভাবশালী ওই জেনারেল বাংলাদেশের সাংসদকে অনৈতিকভাবে ব্যবসা পরিচালনায় মদদ দিয়েছিলেন।

পাচারের শিকার পাঁচ বাংলাদেশির অভিযোগের ভিত্তিতে পাপুলের বিরুদ্ধে মানবপাচার, অর্থপাচার ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের শোষণের অভিযোগ এনেছিল কুয়েতি প্রসিকিউশন।

মানব ও অর্থ পাচারের অভিযোগে শহিদকে গত বছরের ৬ জুন রাতে তার কুয়েত সিটির বাসা থেকে সে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তারা আটক করেন।

এর আগে গত ২৬ জানুয়ারি কুয়েতে গ্রেপ্তার সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের সম্পদের তথ্য চেয়ে সেদেশে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। সংস্থাটির উপপরিচালক মোহাম্মদ সালাউদ্দিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এই চিঠি দেন।

চিঠিতে কুয়েতে এমপি পাপুলের আয়কর নথিসহ সম্পদের তথ্য সংবলিত যাবতীয় তথ্য চাওয়া হয়েছে। সম্পদের তথ্য নিতে দুদক একটি বিবরণী ফরমও পাঠিয়েছে। তথ্য পূরণ করে পাপুলের প্রাপ্তি স্বাক্ষরসহ ২১ কার্যদিবসের মধ্যে ফেরত দিতে অনুরোধ করা হয়েছে।

এরই মধ্যে পাপুল ও তার স্ত্রী- সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা ইসলাম, শ্যালিকা জেসমিন প্রধান ও মেয়ে ওয়াফা ইসলামের ৬১৩টি ব্যাংক হিসাব জব্দ করেছে দুদক।

গত ১১ই নভেম্বর দুদকের উপ-পরিচালক মো. সালাহউদ্দিন বাদী হয়ে দুই কোটি ৩১ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ ও ১৪৮ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শহিদ ইসলাম পাপুল, তার স্ত্রী সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা, মেয়ে ওয়াফা ইসলাম এবং শ্যালিকা জেসমিন প্রধানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলায় গত ২৬ নভেম্বর পাপুলের স্ত্রী সংসদ সদস্য সেলিনা ইসলাম ও মেয়ে ওয়াফা ইসলাম হাইকোর্টে আগাম জামিন চেয়ে আবেদন করেন। সে আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট তাদের আত্মসমর্পণ করতে নির্দেশ দেন। ওই নির্দেশ অনুসারে তারা আত্মসমর্পণ করে ২০২০ সালের ২৭ নভেম্বর ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত থেকে জামিন পান।

প্রসঙ্গত, অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে কুয়েতে গ্রেপ্তার হন সংসদ সদস্য শহিদ ইসলাম পাপুল৷ বর্তমানে তিনি কুয়েতের কারাগারে আছেন। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পাপুলের বিরুদ্ধে মানবপাচারসহ জ্ঞাত আয় বহির্ভূত উপায়ে শত শত কোটি টাকা অর্জন করে হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে টাকা পাচারের অভিযোগ অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় দুদক। ইতিমধ্যে পাপুল ও তার স্ত্রী সংরক্ষিত নারী সদস্য সেলিনা ইসলামসহ চার জনের ৬১৭টি ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ এবং ৯২টি তফসিলভুক্ত স্থাবর সম্পত্তি ক্রোকেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন...

দেশে করোনায় আরো মারা ১৭ জনের মৃত্যু

বাসস : দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের ৩২৮তম দিনে ২৪ ঘন্টায় এই ভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছেন আরো ১৭ …